৫৩ লাখ টাকা দিলে বাবরের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নেবেন সেই নারী

লাখ টাকা দিলে বাবরের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নেবেন সেই নারী
image_pdfimage_print

নিউজ ডেস্ক-

কদিন আগেই পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তোলেন হামিজা মুখতার নামে এক নারী। বাবর তখন তিন টি-টোয়েন্টি ও দুই টেস্ট খেলতে নিউজিল্যান্ড অবস্থান করছিলেন।

লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলন করে ওই নারী অভিযোগ করেন, পাক অধিনায়ক বাবর আজম তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অন্তঃসত্ত্বা করেছেন। এরপর লাহোর আদালতে মামলাও ঠুকে দেন ওই নারী।

এমন গুরুতর অভিযোগের বিষয়ে পিসিবি বা বাবরের পক্ষ থেকে পাল্টা কোনো বক্তব্য না পাওয়া গেলেও শুরু থেকেই অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বলে আসছেন বাবরের আইনি পরামর্শকরা।

তবে এবার ওই নারীর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন এক অভিযোগ আনলেন বাবরের আইনি পরামর্শক দল।

তাদের অভিযোগ, বাবরের কাছে ১ কোটি পাকিস্তানি রুপি (বাংলাদেশ মুদ্রায় প্রায় ৫৩ লাখ টাকা) দাবি করেছেন অভিযোগকারী নারী হামিজা।  এই অর্থ দিলেই মামলা তুলে নেবেন তিনি।

বাবরের আইনি পরামর্শক দল আরও জানান, এভাবেই তাদের মক্কেলকে (বাবর) ব্ল্যাকমেইল করছেন হামিজা।  শুরুতে ১ কোটি পাকিস্তানি রুপি চাইলেও বর্তমানে ২০ লাখেই মামলা তুলে নেবেন বলে জানিয়েছেন হামিজা। কিন্তু হামিজার এই দাবি পূরণ করা হবে না।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বাবরের আইনি পরামর্শকরা জানিয়েছেন, হামিজাকে একটা পয়সাও দেয়া হবে না। আমরা দ্রুত এ মামলার নিষ্পত্তি করতে আর্জি জানিয়েছি।

জানা গেছে, এ মামলা এখন মুলতবি অবস্থায় আছে। হামিজাকে তার পূর্ণাঙ্গ বক্তব্য উপস্থাপনের সুযোগ দিয়েছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ নভেম্বর পাকিস্তানের লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলন করে বাবরের বিরুদ্ধে গুরুতর সব অভিযোগ এনে হামিজা মুখতার বলেন, ‘বাবর আমাকে বিয়ের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে, এতে আমি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ি। পরে সে আমাকে মারধর করে, হুমকি দেয়। আমাকে সে বছরের পর পর ব্যবহার করেছে।’

তিনি অভিযোগ করে আরও বলেন, ‘যখন সে ক্রিকেটে তেমন কিছুই ছিল না, তখন থেকেই তার সঙ্গে আমার পরিচয়। বাবর দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে আসা। আমরা একই কলোনিতে থাকতাম। বহু সময় আমরা একসঙ্গে কাটিয়েছি। আমার সঙ্গে সে যে প্রতারণা করেছে, তার বিচার আমি চাই।

সব সাংবাদিক ভাইবোনের কাছে আমার আবেদন– আপনারা আমার পাশে থাকবেন। আমি যে প্রতারণার শিকার হয়েছি, অন্য কেউ যেন এমন পরিস্থিতির শিকার না হন।’আচমকা বাবর আজমের বিরুদ্ধে ওই নারীর এসব অভিযোগে পাকিস্তান ক্রিকেটে তোলপাড় শুরু হয়।

তথ্যসূত্র: ক্রিক ট্র্যাকার

https://youtu.be/SoYl3xOHHVc 

Leave a Reply