সামর্থ্যের সবটুকু দিতে চান ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক

সামর্থ্যের সবটুকু দিতে চান ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক
image_pdfimage_print

নিউজ ডেস্ক-

দ্বিতীয় সারির দল নিয়েই আশায় বুক বাঁধছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ। বাংলাদেশ সফরে দুটি কাজ ভালোভাবে করতে চান তিনি—একটি হলো বাংলাদেশের মাটিতে ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙা, অন্যটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের নিয়মিত দলে জায়গা করে নেওয়া। তাই নিজের সামর্থ্যের সবটুকু দিতে চান সফরকারী দলের অধিনায়ক।

কোয়ারেন্টিন শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে অনুশীলন শুরু করেছেন অতিথিরা। গতকাল মিরপুরের শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে ও নেটে নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছে সফরকারীরা।

প্রথম দিনের অনুশীলন শেষে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ওয়ানডে অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ বলেন, ‘আড়াই বছর পর দলে ফিরলাম। আমার অনেক বড় দায়িত্ব। নিজের সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে দলকে সিরিজ জয়ে নেতৃত্ব দিতে চাই। আর পূর্ণ শক্তির দল যখন হবে, তখন নিজের জায়গা ধরে রাখতে চাই।’

এরপর উইন্ডিজ অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের প্রস্তুতিটা ভালো হতে হবে। চিন্তার জায়গা পরিষ্কার হতে হবে। আমরা জানি, বাংলাদেশ তাদের স্পিনারদের ওপর অনেকটা নির্ভর করবে। ওদের কয়েকজন খুব ভালো স্পিনার আছে। আমরা জানি, কন্ডিশন ওদের স্পিনারদের জন্য সহায়ক হবে। আজ আমাদের অনুশীলনের উইকেট ছিল মন্থর। সেটা জয় করতে নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে আমাদের।’

জেসন আরো বলেন, ‘আমাদের দলে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার খুব বেশি নেই। এখানে অনেক তরুণ ক্রিকেটার আছে। ওদের যতটা সম্ভব শান্ত, স্থির রাখার চেষ্টা করব। মাঠে তরুণ বোলারদের যতটা সম্ভব ভালোভাবে পথ দেখানোর চেষ্টা করব। আমার মনে হয়, এই পর্যায়ে সবাই নিজের খেলাটা বোঝে। আমার শুধু নিশ্চিত করতে হবে, ওরা যেন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারে।’

আগামী ১৮ জানুয়ারি বিকেএসপিতে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০ ও ২২ জানুয়ারি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হবে সিরিজের প্রথম দুটি ওয়ানডে। আগামী ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে হবে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

এরপর ২৮ থেকে ৩১ জানুয়ারি চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে চার দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সফরকারী দল। ৩ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট হবে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে, ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে।

Leave a Reply